1. rajoirnews@gmail.com : ABDUL AZIZ : ABDUL AZIZ
  2. gopalganjbarta@gmail.com : ashik Rahman : ashik Rahman
  3. news.coxsbazarvoice@gmail.com : ABDUL AZIZ : ABDUL AZIZ
  4. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
লক্ষ্য নির্বাচন: ডিসেম্বরের মধ্যে সারা দেশে নতুন নেতৃত্বের টার্গেট - Coxsbazar Voice
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৪:০৬ পূর্বাহ্ন
দৃষ্টি দিন:
সম্মানিত পাঠক, আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। প্রতিমুহূর্তের সংবাদ জানতে ভিজিট করুন -www.coxsbazarvoice.com, আর নতুন নতুন ভিডিও পেতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল Cox's Bazar Voice. ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে শেয়ার করুন এবং কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

লক্ষ্য নির্বাচন: ডিসেম্বরের মধ্যে সারা দেশে নতুন নেতৃত্বের টার্গেট

  • প্রকাশিত : শনিবার, ১১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০.৪৮ এএম
  • ২৬ জন সংবাদটি পড়েছেন।

ভয়েস নিউজ ডেস্ক:

চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে সারাদেশের ওয়ার্ড, ইউনিয়ন, থানা, পৌরসভা ও উপজেলার জট লেগে থাকা সম্মেলন শেষ করবে আওয়ামী লীগ। নতুন বছরের শুরু থেকে মার্চ পর্যন্ত মেয়াদোত্তীর্ণ সকল জেলা সম্মেলন সম্পন্ন করা হবে। এরপরই ক্ষমতাসীন দলটি সম্পন্ন করবে তার ২২তম জাতীয় সম্মেলন। আর সম্মেলনের মাধ্যমে দায়িত্ব নেওয়া নতুন নেতৃত্বের হাত ধরে জাতীয় সংসদ (দ্বাদশ) নির্বাচনের জন্য সার্বিক প্রস্তুতি গ্রহণ করা হবে।

আওয়ামী লীগ সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, চলতি বছর থেকে সংগঠন গোছানো হবে। দলের অভ্যন্তরে ঝগড়া-বিবাদ ও ভুল বোঝাবুঝি দূর করা ও সংগঠনে সকল স্তরে সম্মেলন করা ও নতুন নেতৃত্বের হাতে দায়িত্ব তুলে দেওয়া হবে। সর্বস্তরে আওয়ামী লীগের নতুন ওই নেতৃত্ব আগামী নির্বাচনে দলকে বিজয়ী করতে ভূমিকা পালন করবে। মতিয়া চৌধুরী বলেন, আগামী জাতীয় নির্বাচনের আগে কেন্দ্রীয় সম্মেলনও সম্পন্ন হবে। সেই নেতৃত্ব জাতীয় নির্বাচনের প্রস্তুতি নেবে।

আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব উল আলম হানিফ বলেন, দলের সর্বস্তরে সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে। নানা কারণে দলের তৃণমূল পর্যায়ে বছরের পর বছর সম্মেলন হয়নি। চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে ওয়ার্ড থেকে উপজেলা পর্যন্ত সম্মেলন করবো। নতুন বছর থেকে যেসব জেলায় দীর্ঘদিন সম্মেলন হয় না সেসব জেলা সম্মেলন করা হবে। মার্চের মধ্যে শেষ করতে পারবো জট লেগে থাকা সকল জেলার সম্মেলন। তিনি বলেন, এরপর কেন্দ্রীয় সম্মেলনও হয়ে যাবে নির্ধারিত সময়ে। সর্বস্তরে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করে ওই নতুন নেতৃত্বই দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন মোকাবিলা করবে।

একই ধরনের অভিমত ব্যক্ত করেন আওয়ামী লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক (ঢাকা বিভাগ) মির্জা আজম। বাংলা ট্রিবিউনকে দেওয়া এক প্রতিক্রিয়ায় তিনি বলেন, চলতি বছরের ডিসেম্বরের মধ্যে ওয়ার্ড থেকে উপজেলা পর্যন্ত সকল স্তরের সম্মেলন শেষ করা হবে। আগামী বছরের মার্চের মধ্যে সকল জেলার সম্মেলন শেষ করা হবে। তিনি বলেন, এরপরই কেন্দ্রীয় সম্মেলনের প্রস্তুতি শুরু করা হবে। আজম বলেন, সর্বস্তরে দলকে ঢেলে সাজানোই হলো আওয়ামী লীগের কর্ম পরিকল্পনা। তিনি বলেন, বৃহস্পতিবার দলের কার্যনির্বাহী সংসদের সভায় দলের কর্মপরিকল্পনা নির্ধারণ ও অনুমোদন নিয়ে সারাদেশে পুরোদমে সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু হবে।

আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম গত বুধবার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, করোনা পরিস্থিতিতে সাংগঠনিক কার্যক্রম প্রায় বন্ধ হয়ে যায়। আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মী অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তিনি বলেন, এখন থেকে সাংগঠনিক কার্যক্রম শুরু হবে। তৃণমূল থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত আওয়ামী লীগকে উজ্জীবিত করে তোলা হবে। দীর্ঘদিন সম্মেলন না হওয়া ইউনিটগুলোর সম্মেলনই আমাদের মূল লক্ষ্য। আগামী বছর থেকে জাতীয় নির্বাচন মোকাবিলা করার প্রস্তুতি ও কর্মকৌশল নির্ধারণ ও বাস্তবায়ন করতে কাজ করবে আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীরা। সুত্র: বাংলাট্রিবিউন।

ভয়েস/ জেইউ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

© All rights reserved © 2020
Design & Developed by : JM IT SOLUTION