1. rajoirnews@gmail.com : ABDUL AZIZ : ABDUL AZIZ
  2. gopalganjbarta@gmail.com : ashik Rahman : ashik Rahman
  3. news.coxsbazarvoice@gmail.com : ABDUL AZIZ : ABDUL AZIZ
  4. jmitsolutionbd@gmail.com : jmmasud :
জেলার ১৬ ইউপিতে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন  - Coxsbazar Voice
বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২, ০২:১৭ অপরাহ্ন
দৃষ্টি দিন:
সম্মানিত পাঠক, আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। প্রতিমুহূর্তের সংবাদ জানতে ভিজিট করুন -www.coxsbazarvoice.com, আর নতুন নতুন ভিডিও পেতে সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল Cox's Bazar Voice. ফেসবুক পেজে লাইক দিয়ে শেয়ার করুন এবং কমেন্ট করুন। ধন্যবাদ।

জেলার ১৬ ইউপিতে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন 

  • প্রকাশিত : রবিবার, ২৮ নভেম্বর, ২০২১, ৬.১৩ পিএম
  • ৬৩ জন সংবাদটি পড়েছেন।

বিশেষ প্রতিবেদক:

কক্সবাজারের ১৬ ইউপি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। রোববার (২৮ নভেম্বর) সকাল ৮টায় শুরু হয়ে বিকাল ৪টায় শেষ হয় ভোটগ্রহণ। তবে ব্যালটপেপার ছিনতাই ও ব্যালটবক্স ভাংচুরের অভিযোগে বারবাকিয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর ফাসিয়াখালী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়।

এসময় ভোট কেন্দ্রে নৌকা প্রতীকের একদল সমর্থকের সাথে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী বদিউল আলমের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এদিন দুপুরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কক্সবাজারের জেলা নির্বাচন অফিসার এসএম সাহাদাত হোসেন জানান বারবাকিয়া ইউনিয়নের ৬ নম্বর কেন্দ্রের ভোট গ্রহণ বন্ধ করে দেয়া হয়।

এদিকে তৃতীয় ধাপে কক্সবাজারের দুটি উপজেলার মোট ১৬টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের ভোটগ্রহণ চলে।

রোববার (২৮ নভেম্বর) সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হয়ে বিকেল ৪টায় শেষ হয়।

একযোগে ভোটগ্রহণ শুরু হওয়া ইউনিয়নগুলো হলো- চকরিয়া উপজেলার কৈয়ারবিল, কোনাখালী, সাহারবিল, পশ্চিম বড় ভেওলা, বদরখালী, পূর্ব বড় ভেওলা, ঢেমুশিয়া, ভেওলা মানিকচর, কাকারা ও লক্ষ্যারচর এবং পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী, পেকুয়া সদর, মগনামা, উজানটিয়া, বারবাকিয়া ও শীলখালী।

এবার চকরিয়া তৃতীয়ধাপের ইউপি নির্বাচনে ১০ ইউনিয়ন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান প্রার্থীসহ ৬৪ জন, সংরক্ষিত নারী ইউপি সদস্য পদে ১৩২ জন ও সাধারণ ইউপি সদস্য পদে ৩৬৬ জন প্রার্থী এই ভোট যুদ্ধে অংশগ্রহন করেছেন। নির্বাচনের দিন সকালে ব্যালট পেপার কেন্দ্রে সরবরাহ করা হয়। প্রতিটি কেন্দ্রে ৫ জন পুলিশ সদস্য, ১৭ আনসার সদস্য ছিল। চকরিয়ায় ৩ প্লাটুন বিজিবি সদস্য, ৪০জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রে টহলে ছিল। সার্বক্ষণিক মাঠে ছিলেন ৩ জন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট। এছাড়াও র‌্যাবের ৬টি স্ট্রাইকিং ফোর্স, পুলিশের দুটি মোবাইল টিম ও স্ট্রাইকিং ফোর্স একইসাথে প্রতিটি ইউনিয়নে নিরবচ্ছিন্নভাবে দায়িত্ব পালন করেছেন।

পেকুয়ার ৬ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৪৫ জন, সাধারণ সদস্য পদে ২৮৫ জন এবং মহিলা সংরক্ষিত সদস্য পদে ৭০ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করেছেন। অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্পন্ন করার জন্য আইনশৃংখলা রক্ষায় নিয়োজিত ছিলেন ২৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, ৪ প্লাটুন বিজিবি ও সাড়ে ৩ শত পুলিশ সদস্য। এছাড়াও র‌্যাব-১৫ এর একটি চৌকস দল স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসাবে নিয়মিতভাবে কেন্দ্র টহলে ছিল।

ভয়েস/আআ

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2020
Design & Developed by : JM IT SOLUTION